জেনে নেই তেঁতুলের উপকারিতা ও অপকারিতা

172
তেঁতুলের উপকারিতা ও অপকারিতা
তেঁতুলের উপকারিতা ও অপকারিতা

তেঁতুলের উপকারিতা ও অপকারিতা – তেঁতুলের কথা বললেই মুখে জল চলে আসে। সত্যিই খুবই মজাদার একটি ফল তেঁতুল। ছোট বেলায় গ্রামে গঞ্জে তেঁতুল গাছে চড়া , তেঁতুল পেড়ে খাওয়া গ্রামের মানুষের একটি কাছে চিরায়িত নিয়ম। শত বছর বাঁচে একটি তেঁতুল গাছ। প্রতিটি বাড়ীতে তেঁতুলের গাছ দেখতে পাওয়া যেত। দিন দিন তা হারাতে বসেছে। এই তেঁতুলের আছে বহুগুন উপকারিতা। তেঁতুল খেলে আপনার কি কি হতে পারে চলুন দেখে আসি।

তেঁতুলের উপকারিতাঃ

১। আমাশয়,কোষ্ঠবদ্ধতা ও পেট গরমে বেশ উপকার করে।
২। পেটের বায়ু, হাত পা জ্বলায় তেঁতুলের শরবত অনেক উপকারি।
৩। ডায়বেটিস কন্ট্রোল করতে তেঁতুলের জুড়ি নাই।
৪। শরীরের মেদ কমাতে সাহায্যে করে।
৫। ক্যান্সারের নিয়ন্ত্রণে সাহায্যে করে।
৬। তেঁতুলের পাতা ম্যালেরিয়া জ্বর সারায় পারে।
৭। পেপটিক আলসার রোধ করে।
৮। হৃদরোগের জন্য উপকারি।
৯। ক্ষত সারিয়ে তুলতে পারে।
১০। ত্বক উজ্জ্বলতা বাড়াতে তেঁতুল সাহায্যে করে।
১১। তেঁতুল জন্ডিস রোগে জন্য উপকারি।
১২। পাকা তেঁতুল কাশি সারায় পারে।

আরও পড়ুন >> ইসলামী ব্যাংক এর সহজ লোন সুবিধা ।

১৩। লিভার সুরক্ষিত রাখে।
১৪। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রনে রাখে।
১৫। মুখের লালা তৈরি করতে সাহায্যে করে।
১৬। তেঁতুল রক্ত পরিষ্কার করে।
১৭। তেঁতুল খিদে বাড়ায় বমি বমি ভাব দূর করে।
১৮। রক্তে কোলেস্টেরল কমায়।
১৯। কোথায় কেটে গেলে ক্ষত সারাতে তেঁতুল গাছের বাকল সাহায্যে করে।
২০। বুক ধড়ফর করা, মাথা ঘোরানো রোগে তেতুল উপকারি।
২১। তেঁতুল পাতার রস কৃমিনাশক ও চোখ উঠা সারায়।
২২। মুখে ঘা হলে তেঁতুলের পানিতে কুলি করলে উপকার পাওয়া যায়।
২৩। মস্তিষ্কের জন্য উপকারি।
২৪। তেঁতুলের সাথে রসুন খেলে রক্তের চর্বি কমে।
২৫। শিশুদের পেটের কৃমি দূর করে।
২৬। বাত ও জয়েন্টের ব্যথা দূর করে।
২৭। তেঁতুল ত্বকের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে ও ত্বক ভাল রাখে।
২৮। তেঁতুল শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয়।

তেঁতুলের অপকারিতাঃ

উপকারিতার এর পাশাপাশি তেতুলের বেশ কিছু অপকারিতা রয়েছে। ভাল জিনিস সব সময় ভাল নয়। যদি আপনি বেশি পরিমান খান অথবা নিয়ম না মেনে খেয়ে থাকেন। তবে উপকারের চাইতে অপকার বেশি হবে। চলুন জেনে নেই তেঁতুলের অপকারিতা কি কি?

১। বেশি পরিমান তেঁতুল খেলে শরীরে রক্তপাত বৃদ্ধি করে।
২। গ্লুকোজের মাত্রা কমিয়ে দিতে পারে।
৩। শরীরে এলার্জির মাত্রা বৃদ্ধি পায়।
৪। বেশি তেঁতুল খেলে ওজন দ্রুত কমে যায়।
৫। তেঁতুলের মধ্যে টারটারিক এসিড থাকে, দাঁত নষ্ট হয়ে যেতে পারে।
৬। পিওথলি সমস্যা হতে পারে।
৭। অতিরিক্ত তেঁতুল খেলে জন্ডিসের মতো সমস্যা হতে পারে।
৮। শরীরে এসিডের পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে পারে।
৯। অতিরিক্ত পরিমাণে তেঁতুল খেলে আপনার লো প্রেসার হতে পারে।

অতিরিক্ত কোনো কিছুই ভালো নয়। এই পৃথিবীর প্রত্যেকটি জিনিসের উপকারিতার পাশাপাশি বেশ কিছু অপকারিতা রয়েছেন। তেঁতুল তার ক্ষেত্রে তার ব্যতিক্রম নয়। তবুও আমরা তেঁতুলে ভালো দিক গ্রহণ করে খারাপ দিক বর্জন করব। নিজে সুস্থ থাকি, পরিবারে প্রতি যত্নবান হই।

আরও পড়ুন >> গ্রামীনফোন নতুন সিমের অফার ।। নতুন সিমে ২০ জিবি ফ্রি