কবিতা “বিক্ষিপ্ত রাজনীতির রাজপথে”- জাহাঙ্গীর আলম সুমন

215

কবিতা
বিক্ষিপ্ত রাজনীতির রাজপথে

 

রাএির নিগূর অন্ধকার শহর রাজধানী ঢাকার
সুগভীর শূন্যতার মাঝে চাহিয়া দেখি
আমার কাব্যকথার স্বরচিত নিধুয়া খামার
বাহে,বাহে অনেক ইতিহাস আছে হামার।

সরকারের কোন পদ পাবোনা বলেই
বেধেঁছি কোমর ধরেছি গরুর হাল।
রাজনৈতিক দাবানল
আমায় দিয়েছে শূন্য কপাল।
আমি বিশুদ্ধ ডিগ্রি নিয়ে এসেছিলাম
আমি বলে ছিলাম,
স্যার,চাকরিটা বড়ই প্রয়োজন
বৃদ্ধপিতা মাতা আস্তাকুড়ের মত পড়ে আছে
ডাল ভাতের সামান্য মাইনা দিলেই চলবে
উপবাসে থাকা সরকারের উচ্ছপদস্থ আমলা
আমার কাছে ভিক্ষি চায়।
সুগভীর শূন্যতার মাঝে চাহিয়া দেখি
আমার কাব্যকথার স্বরচিত নিধুয়া খামার
বাহে,বাহে অনেক ইতিহাস আছে হামার।

জীবন চলার পথে তালা এটে দিয়ে
চাবি নিয়ে চলেগেছে এক কঠিন বাস্তবতা।
জানি,সে আর ফিরে আসবেনা
যতই হোক সময়ের গভিরতা।
দেশের প্রত্যেক শ্রেনীর আলমারিতে
সরকার দলীয় তেলোপোকার নিবীর শ্রেনী
দংশনের বিভীষিকায় ডুবে গেছে ধরনী।
সুগভীর শূন্যতার মাঝে চাহিয়া দেখি
আমার কাব্যকথার স্বরচিত নিধুয়া খামার
বাহে,বাহে অনেক ইতিহাস হামার।

বয়সের দ্বিপ্রহর ছেড়ে এসেছি
এখন আর দুবেলা দুমুঠো ভাতের জন্য
চাকরি খুজিনা।
চাকরি খুজতে খুজতে আমি নির্লজ্জ প্রান এক
যেখানেই গিয়েছি দেখেছি প্রবৃত্তি কালো কাক।
বসন্তের কোকিল দেখেনি
স্বাধিন বাংলার অফিস ঘুরে ঘুরে।
সূর্যউঠলে আলো আসে
নয়া প্রেমে আসে হাসি
কে দেবে চেয়ার আমায়
জগৎ সন্ন্যাসি।

দেশের বিক্ষিপ্ত রাজনীতির রাজপথে
আমার পথ নিভৃত।
বিশ্বরাজনীতির রাজপথে
আমি উৎপাটিত।
আমার কোন পথ নেই।
সুগভীর শূন্যতার মাঝে চাহিয়া দেখি
আমার কাব্যকথার স্বরচিত নিধুয়া খামার
বাহে,বাহে অনেক ইতিহাস আছে হামার।

নষ্ট হলে কবি- আশিকুজ্জামান জুয়েল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here